3:37 pm - Thursday September 19, 1652

ব্লাউজ কিনে না দেয়ায় স্ত্রীর বিষপান, অভিমানে স্বামীর মৃত্যু!

কেবল স্বামীর কাছে ছোট্ট একটি আবদার করেছিল স্ত্রী। হাট থেকে এনে দিতে হবে নতুন ব্লাউজ। কিন্তু তা দেয়া হয় নি বলে খেয়ে ফেললেন বিষ। আর আর তাতে অভিমান করে বাকি বিষটুকু স্বামী খেয়ে জীবনই দিয়ে দিলেন

এ ঘটনার সূত্রপাত সোমবার। ঘটনাটি ঘটে উত্তর দিনাজপুরের কালিয়াগঞ্জের বকদুয়ার গ্রামে।

জানা যায়, উদয় রায় নামে ওই ব্যক্তি ধনকৈল হাটে গিয়েছিলেন ধান বিক্রি করতে। হাট থেকে ব্লাউজ কিনে আনার আবদার করেন তার স্ত্রী লতিকা। কিন্তু ভুলবশত ব্লাউজের বদলে মুরগির মাংস কিনে বাড়ি ফেরেন তিনি।

স্বামীর কাণ্ড দেখে রীতিমতো অবাক হন স্ত্রী। ব্লাউজ নিয়ে এতটাই আকাঙ্ক্ষা চরমে ওঠে যে উদয়ের আনা মাংস রান্না করতে অস্বীকার করেন লতিকা। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে সেই মাংস রান্না করে নেন উদয়ের মা।

অনেক আগেই হাঁড়ি ভাগ হয়ে গিয়েছে মা-ছেলের। উদয়ের মায়ের এই কাণ্ডে আগুনে ঘি পড়ে। এরপর লতিকা দোকান থেকে বিষ এনে তা খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। পড়ে লতিকাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এই মুহূর্তে কালিয়াগঞ্জ স্টেট জেনারেল হাসাপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন তিনি।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানায়, স্ত্রীর খাওয়া বাকি বিষ নিয়ে বাইরে বেরিয়ে যান উদয়। অনেক রাত পর্যন্ত ঘরে না ফেরায় খোঁজাখুঁজি শুরু হয়। প্রতিবেশিরা প্রথমে সন্দেহ করেন, ট্রেন ধরে হয়ত দিল্লি চলে গিয়েছেন উদয়। কিন্তু পরের দিন সকালে পাশের আমবাগানে তার মৃত দেহ উদ্ধার হয়। বিষয়টি জানাজানি হতেই এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়ায়। খবর দেওয়া হয় কালিয়াগঞ্জ থানার পুলিসকে। পুলিস এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিস।

Filed in: সাম্প্রতিক

Comments are closed.