3:57 pm - Wednesday July 18, 2018

কাতারে সৌদি হামলার হুমকির জবাবে যা বলল কাতার

বেশ উত্তেজনা বিরাজ করছে আরব দেশ গুলোর মধ্যে কয়েক মাস ধরেই । এর মধ্যে অন্যতম সৌদি আরব । প্রতিবেশি দেশগুলোর মশ্যে সম্পর্ক ভাল নেই সৌদি অরবের ।বিশেষ করে কাতারের সাথে। বছর খানেক আগে কাতারের বিরুদ্ধে অন্যায়ভাবে অভিযোগ এনে কাতারের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক ও সীমান্ত অবরোধের ঘোষণা দেয় সৌদি আরব। তার পর থেকে দু দেশের মধ্যে বিভিন্ন সময় উত্তেজনা চলছে ।

রাশিয়ার কাছ থেকে ‘এস-৪০০’ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা কিনছে কাতার।এমন খবরে কাতারে হামলার হুমকি দেয় সৌদি বাদশা।

সৌদি বাদশা দোহারের বিরুদ্ধে যে সামরিক পদক্ষেপ নেবেন বলে হুমকি দিয়েছেন তা প্রত্যাখ্যান করেছেন কাতারের দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ বিন আব্দুল রহমান আল থানি। খবর আল জাজিরার।

তিনি বলেছেন, কাতারের অস্ত্র কেনার সিদ্ধান্ত সার্বভৌমত্বের সঙ্গে জড়িত।

হুমকি সম্পর্কে সোমবার কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ বিন আব্দুল রহমান আল থানি বলেছেন, আন্তর্জাতিক আইন এবং সব ধরনের আন্তর্জাতিক নিয়মনীতির লঙ্ঘন।

আল জাজিরাকে আল থানি বলেছেন, ‘যেকোনো ধরনের সামরিক সরঞ্জাম কেনা একটি স্বাধীন, সার্বভৌম দেশের সিদ্ধান্ত। অন্য কোনো দেশ এই ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করতে পারে না।’

শুক্রবার ফ্রান্সের দৈনিক লা মন্ড পত্রিকা জানিয়েছে, রাশিয়ার কাছ থেকে অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ‘এস-৪০০’ কেনার জন্য কাতার যে আলোচনা চালাচ্ছে চিঠিতে সে ব্যাপারে ‘গভীর উদ্বেগ’ প্রকাশ করেন সৌদি বাদশা। প্রেসিডেন্ট ম্যাকরনকে লেখা চিঠিতে বাদশা সালমান বলেন, দোহা ‘এস-৪০০’ কিনলে মধ্যপ্রাচ্যে রিয়াদের নিরাপত্তাগত স্বার্থ বিপন্ন হবে।

কাজেই কাতার যাতে এ ব্যবস্থা ক্রয় না করে সেজন্য দেশটির ওপর চাপ সৃষ্টি করতে ফরাসি প্রেসিডেন্টকে অনুরোধ জানিয়েছেন বাদশা সালমান।

চিঠিতে সৌদি বাদশা লিখেছেন, ‘কাতার এস-৪০০ কিনলে সৌদি আরব ওই ব্যবস্থা ধ্বংস করার জন্য সামরিক ব্যবস্থাসহ সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রস্তুত থাকবে।’

কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আল থানি সৌদি বাদশার এই চিঠি সম্পর্কে বলেছেন, ‘কোনো পদক্ষেপ নেয়ার জন্য এই চিঠির আইনগত কোনো ভিত্তি নেই।’

তিনি বলেছেন, ‘এটা খুবই দুর্ভাগ্যজনক যে তারা এটাকে অস্থিতিশীল আচরণ হিসেবে দেখছে। কাতার সৌদির জন্য হুমকি নয়।’

এই ধরনের হুমকি উপসাগরীয় দেশগুলোর জোট গালফ কো-অপোরেশন কাউন্সিলের (জিসিসি) সনদের লঙ্ঘন। সনদ অনুযায়ী, এই সংগঠনের কোনো সদস্য দেশ একে অপরের বিরুদ্ধে হামলা চালাতে পারে না বলে তিনি জানান।আল থানি অরও বলেন বলেন, বর্তমানে কাতার রাশিয়ার সরকারের কাছ থেকে হুমকির বিষয়টি আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত করার চেষ্টা করছে।

তবে সৌদি আরবের বিরোধিতা সত্ত্বেও কাতারকে আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৪০০ দেবে রাশিয়া। দেশটির স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমকে এই তথ্য জানিয়েছেন সিনিয়র রুশ কর্মকর্তা আলেস্কি কোন্দ্রাতিয়েভ।

সংবাদমাধ্যমের কাছে এক মন্তব্যে রুশ পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষের সদস্য এবং প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তা বিষয়ক সংসদীয় কমিটির উপপ্রধান আলেস্কি বলেন, এস-৪০০ বিক্রিতে রাশিয়া তার নিজের প্রত্যয়ে ঠিক থাকবে।

এসময় আরো বলেন, ‘কাতারের কাছে এস-৪০০ ‍বিক্রি করে অর্থ আয় করার মাধ্যমে রাশিয়া তার নিজের স্বার্থের জন্যই কাজ করছে। এখানে সৌদি আরব কী বললো, তা নিয়ে ভাবার সময় নেই। রাশিয়ার পরিকল্পনায় পরিবর্তন আসবে না কখনো।’

Filed in: আন্তর্জাতিক

Comments are closed.